বিশ্বের সর্ববৃহৎ সার্চ ইঞ্জিন ও প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠান গুগলে সফটওয়্যার ইঞ্জিনিয়ার হিসেবে ডাক পেয়েছেন বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয়ের (ববি) শিক্ষার্থী আবু সায়েম সেফাতুল্লাহ

তথ্য নিশ্চিত করেছেন আবু সায়েম সেফাতুল্লাহ

বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয়ের কম্পিউটার সায়েন্স অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের ২০১৫-১৬ শিক্ষাবর্ষের শিক্ষার্থী ছিলেন। বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয়ের কোনো শিক্ষার্থীর গুগল থেকে ডাক পাওয়ার ঘটনা এটাই প্রথম।


তিনি জানান, সকল প্রসেসিং শেষ করে ৮ই এপ্রিল সন্ধ্যায় (বাংলাদেশ সময়) আমার এ খুশির সংবাদটি আমি পাই। তার সাফল্য নিয়ে প্রশ্ন করলে তিনি জানান, আসলে চেষ্টা সকল সফলতার চাবিকাঠি। তবে পিতা-মাতা এ ব্যাপারে আমাকে ব্যাপক সাপোর্ট দিয়েছেন। তারা আমার ইচ্ছার উপর বেশি প্রাধান্য দিয়েছেন। আমি সকল শিক্ষক ও বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রতি কৃতজ্ঞ। শিক্ষার্থীদের উদ্দেশ্যে কিছু বলার জন্য প্রশ্ন করা হলে তিনি জানান, আসলে কোন বিশ্ববিদ্যালয় কত তম র‍্যাংকিং এ আছে এটা বড় ব্যাপার না। ব্যাপার হচ্ছে আপনি কতটুকু চেষ্টা করছেন বা আপনার ইচ্ছার উপর কতটুকু জোর দিচ্ছেন।

আবু সায়েম সেফাতুল্লাহ আরো বলেন, সিএসইতে যারা পড়েন তাদের সবারই ইচ্ছা থাকে গুগলের মতো কোনো জায়গায় চাকরি করার। আমারও এ ইচ্ছাটা ছিল। সপ্তম সেমিস্টারে থাকার সময় সিঙ্গাপুর থেকে একটা অফার পেয়েছিলাম। ওই সময় থেকে ইচ্ছা ছিল-গুগলে হয় কিনা। গুগলের ইন্টারভিউ প্রসেসটা অনেক লম্বা ও কঠিন। গত নভেম্বরে আমার ইন্টারভিউ শুরু হয়। এ চার-পাঁচ মাসে অনেক রাউন্ড, প্রসেস পার করে ফাইনালি গতকাল অফারটা পেয়েছি। প্রত্যেকটি রাউন্ড শেষেই অনেক টেনশন ছিল। অফার পাওয়ার অনুভূতি বলে বোঝানো যাবে না।

Google LLC

আবু সায়েমের বাবা ফারুক হোসেন তালুকদার জানান, ছেলের স্বপ্ন পূরণের মধ্য দিয়ে তারও স্বপ্ন পূরণ হয়েছে।

এদিকে বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয়ের কম্পিউটার সায়েন্স এন্ড ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের সহকারী অধ্যাপক মোঃ মোস্তাফিজুর রহমান যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে আবু সায়েমকে অভিনন্দন জানান। সেখানে তিনি লিখেন, বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয় থেকে প্রথমবারের মতো বিশ্বের সর্ববৃহৎ টেক জায়ান্ট গুগলে সফটওয়্যার ইঞ্জিনিয়ার হিসেবে জবের অফার পেয়েছেন আবু সায়েম সেফাতুল্লাহ। এটা বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয় ও কম্পিউটার সায়েন্স অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের বড় অর্জন। তিনি আরও লিখেন, আবু সায়েম টিম রবোট্রাসে হয়ে এর আগে বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয়কে ICPC এবং NCPC-তে প্রতিনিধিত্ব করেছে। ২০১৭-২০২০ সালে এই টিমের অফিসিয়াল কোচ হিসেবে আমি গর্বিত। তার জন্য অভিনন্দন ও শুভকামনা। আশা করি বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয়ের অন্যান্য শিক্ষার্থীরাও তার পথ অনুসরণ করবে।

উল্লেখ্য, আবু সায়েম সেফাতুল্লাহর বাড়ি ঝালকাঠি জেলার নলছিটি উপজেলার সূর্যপাশা গ্রামে৷ বরিশাল মডেল স্কুল এন্ড কলেজ থেকে থেকে মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শেষ করে বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয়ে কম্পিউটার বিজ্ঞান ও প্রকৌশল বিভাগের পড়াশোনা শেষ করেন৷

আবু সায়েম সেফাতুল্লাহ কে গুগলে সফটওয়্যার ইঞ্জিনিয়ার হিসেবে চাকরি অফার পাওয়ার জন্য Codex Devware এর পক্ষ থেকে আন্তরিক শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন। আশা করি আবু সায়েম সেফাতুল্লাহ থেকে অনুপ্রাণিত হয়ে বাংলাদেশের আরো অসংখ্য ছেলেমেয়ে বিশ্বে বাংলাদেশের নতুন পরিচয় তৈরি করবে।

প্রতিবেদনটি ভালো লাগলে পরিচিত জনদের সাথে এবং সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করতে ভুলবেন না।

This report was written by Iftakhar Ahmed